,

আতংক থাকলেও করোনার প্রভাব নেই জকিগঞ্জ ইমিগ্রেশনে

জকিগঞ্জ(সিলেট)::
জকিগঞ্জ ইমিগ্রেশন স্টেশনে করোনা আতংক থাকলেও যাত্রী পারাপারে প্রভাব পড়েনি। গতকাল জকিগঞ্জ ইমিগ্রেশনে সরেজমিনে দেখা যায়, করোনা ভাইরাসের কারণে মেডিকেল ক্যাম্পে কাজ করছেন মেডিকেল অফিসার ড. ফাতেমাতুজ জোহরা ও প্রদীপ টুডু। ডা. ফাতেজাতুজ জোহরা বলেন, তারা সদা সর্তক রয়েছেন। কোন যাত্রী বাংলাদেশে প্রবেশ করলেই তাদের পরীক্ষা নিরিক্ষা করা হয়। তবে এ যাবৎ সন্দেহজনক কোন রোগী পাওয়া যায়নি। তিনি জানান করোনা, ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা প্রদানের জন্য হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিট প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ইমিগ্রেশন স্টেশনের ইনচার্জ রুনু মিয়া বলেন, এ স্টেশন দিয়ে ভ্রমনকারীদের যাতায়াতে কোন প্রভাব পড়েনি। প্রতিদিন গড়ে ৩০ থেকে ৩৫ জন যাত্রী যাতায়াত করছে। তিনি বলেন, এ স্টেশন দিয়ে যারাই যাতায়াত করে তারা নিজেদের আত্মীয়স্বজনদের দেখতে যায় এবং মুলত ভারতের আসাম রাজ্যের বরাক ভ্যালীতে সীমাবদ্ধ। ভারত ফেরত এক যাত্রী সুন্দর আলী জানান, ওপারেও করোনা আতংক থাকলেও আক্রান্ত কোন রোগী আছে বলে তিনি শুনতে পাননি।
এদিকে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদ বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। স্থানীয় জনগণকে সচেতন করার পাশাপাশি, হাসপাতালের একটি ইউনিট সদা প্রস্তুত রাখা হয়েছে, এছাড়া প্রয়োজনে কোয়ারেন্টাইন ব্যবস্থার জন্য একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্ধারণ করা হয়েছে। বিদেশ থেকে ব্যক্তিদের নিজস্ব বাসস্থানে সেলফ কোয়ারেন্টাইনে থাকার ব্যবস্থা, গুজব ছড়ানো, বিভ্রান্তি দুর করতে সক্রিয় থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

     এ জাতীয় আরো খবর