,

এবার বীরশ্রীর উজিরপুরের মাহমদের লাশ উদ্ধার কুশিয়ারা নদী থেকে

স্টাফ রাইটার::
জকিগঞ্জে পৃথক স্থানে দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিখোঁজের ৯ দিনের পর শুক্রবার রাতে উপজেলার বারঠাকুরী ইউনিয়নের বাঘপাড়া এলাকায় ধানক্ষেতে বস্তাবন্ধী অবস্থায় মাটিচাপা দেওয়া লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। লাশটি একই ইউনিয়নের কাশিরচক গ্রামের মৃত জামাল উদ্দিন জামুর ছেলে মিজানুর রহমান খোকনের বলে সনাক্ত করেছে তার বড়ভাই বাহার উদ্দিনসহ পরিবারের সদস্যরা। এদিকে আজ শনিবার বিকেল ৩টায় বিয়ানীবাজারের বৈরাগীবাজার এলাকা কুশিয়ারা নদীতে ভাসমান অবস্থায় একটি লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। লাশটি জকিগঞ্জের বীরশ্রী ইউনিয়নের উজিরপুর গ্রামের মৃত ছিদ্দিক আলীর ছেলে মাহমদ আলীর(৪৮)। ১২ নভেম্বর রাতে নিখোঁজ হন মাহমদ আলী । নিখোঁজের ৪ দিন পর ১৬ নভেম্বর মাহমদ আলীর স্ত্রী নেওয়ারুন বিবি জকিগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন। নিহত মাহমদের পরিবারের সদস্যরা জানান বীরশ্রীর বড়চালিয়া গ্রামের আব্দুস শুক্কুরসহ অন্যদের সাথে নিহত মাহমদের দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এর জের ধরে মাহমদ খুন হতে পারেন। অভিযুক্ত শুক্কুর একটি মাদক মামলায় বর্তমানে জেলে রয়েছেন। নিখোঁজ মাহমদ আলী ভাই সামছ উদ্দিন জানান, ১২ নভেম্বর মাহমদ আলীকে নৌকা চালানোর জন্য বাড়ী থেকে ডেকে নেয়ার তিনি আর বাড়ি ফিরেননি।
জকিগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায় দুটি ঘটনাস্থলই পরিদর্শণ করেছেন। তিনি জানান, খোকনকে হত্যা করে হত্যাকারীরা লাশ ধান ক্ষেতে পুঁতে রেখেছিল। তার গলায় ও শরীরে ওড়না ও রশির বাঁধ রয়েছে। মাহমদের লাশ পাওয়া গেছে নদীতে। দুটি হত্যা রহস্য উদঘাটনে পুলিশ চেষ্টা করছে।

     এ জাতীয় আরো খবর