,

জকিগঞ্জে এবার কুরবানীর পশুর দাম কম

স্টাফ রাইটার::
ঈদ যতই ঘনিয়ে আসছে জকিগঞ্জের কুরবানীর হাটগুলিতে ক্রেতা-বিক্রেতাদের ভিড় ততই বাড়ছে। এবার বৈধভাবে প্রচুর ভারতীয় গরু আসছে। স্থানীয়ভাবেও পর্যাপ্ত পরিমাণে দেশীয় গরু, ছাগল, ভেড়াসহ কোরবানির জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে জকিগঞ্জে। ফলে গরুর দাম অন্যান্যবারের চেয়ে এবারকম বলে জানিয়েছেন বিক্রেতা ও ক্রেতারা।

জকিগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: মিজানুর রহমান জকিগঞ্জ নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, জকিগঞ্জে কালীগঞ্জ বাজার, শাহগলি বাজার, জকিগঞ্জ বাজার, বাবুর বাজার ও মাদ্রাসা বাজারে পশুর হাট বসবে। জকিগঞ্জে শুধু নিয়মিত হাটগুলিতেই কুরবানীর হাট বসবে। কোনো অবৈধ বাজার বসবে না। রতনগঞ্জ এলাকাবাসী জেলা প্রশাসকের কাছে পশুর হাট বসানোর জন্য আবেদন করেছেন। কিন্তু অন্য ছয়টি বাজারের ইজারাদারগণ এ বাজারের বিষয়ে আপত্তি জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন। শরীফগঞ্জেও অবৈধ বাজার বসেছে বলে জানা গেছে।

কালীগঞ্জ বাজারের ইজারাদার আব্দুল মনাফ জকিগঞ্জ নিউজকে জানান, বুধবার কালীগঞ্জে সবচেয়ে বড় পশুর হাট বসবে। সেদিন অনুমানিক ছয়শ গরু বিক্রি হবে বলে ধারনা করছেন তিনি। তবে ঈদের আগের দিন বৃহস্পতি ও শুক্রবারেও বিশেষ হাটের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। তার মতে গত ২২ বছরের মধ্যে এবার গরুর দাম জকিগঞ্জে কম।
জকিগঞ্জ বাজারের ইজারাদার ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর আব্দুল আহাদ জানান, পশুর আমদানি আগের চেয়ে অনে বেশি। স্থানীয় গরুও রয়েছে যথেষ্ট। ভারত, বার্মা বা অন্যান্য দেশ থেকে গরু আসায় এবার গরুর দাম কম। গত বছরের চেয়ে এবার প্রতিটি গরু গড়ে ১০-১২ হাজার টাকা কম দামে বিক্রি হচ্ছে।

একই বাজারের অন্য ইজারাদার শিহাব আহমদ জানান, এ হাটের ৮৫ ভাগ ক্রেতাই ২৫ থেকে ৩৫ হাজার টাকার মধ্যে কোরবানির গরু কিনতে চান। জকিগঞ্জ বাজারে বৃহস্পতিবার নিয়মিত বাজার বসবে তবে ক্রেতাদের সুবিধার্থে শুক্রবারও জকিগঞ্জে পশুর হাট বসবে। তিনি জানান বিছানাকান্দি দিয়ে প্রচুর গরু আসছে বৈধবাবে।
জকিগঞ্জের প্রতিটি পশুর হাটই বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার বিকালে বসবে কিন্ত শুধু মাদ্রাসা বাজার বৃহস্পতিবার ও শুক্রবারবার সকালে বসবে।
উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আবুল কাহির জানান,জকিগঞ্জে এবার প্রায় ২৬ হাজার গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া কোরবানীর জন্য প্রস্তুত রাখা রয়েছে।
এদিকে ক্রেতাদের সুবিধার্থে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্যাকসিন দিয়ে গরু মোটাজাত, অসুস্থ্য ও গর্ভবতী গরু চেনার জন্য হাটে পশু চিকিৎসক রাখার ব্যবস্থা করার দাবী জানিয়েছেন ক্রেতারা।

     এ জাতীয় আরো খবর