,

জকিগঞ্জে পরিবহন ধর্মঘটে জনজীবন স্থবির

স্টাফ রাইটার::
তিন দফা দাবীতে জকিগঞ্জে গতকাল সোমবার থেকে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে সিলেট জেলা পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। জকিগঞ্জ-সিলেট প্রধান সড়ক সংস্কার, পরিবহন শ্রমিকদের পুলিশি হয়রানী ও ব্যাটারী চালিত অটোবাইক (টমটম), ট্রলি বন্ধের দাবীতে এ ধর্মঘটের ডাক দেয় পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। জকিগঞ্জে কোন ধরনের যানবাহন চলাচল না করায় যাত্রীরা চরম ভুগান্তির শিকার হচ্ছেন। বিষয়টি আলোচিত হয় গতকালের উপজেলা আইনশৃংখলা কমিটির সভায়ও। স্থানীয় যাত্রী সাধারনের সুবিধার্থে নির্দিষ্ট নিয়মের মধ্যদিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভার অনুমতি নিয়ে টমটম চালানোর প্রস্তাব করা হয় সভায়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জেলা প্রশাসকের সাথে আলোচনা করে ধর্মঘট প্রত্যাহারের উদ্যোগ নেয়ার সিন্ধান্ত হয়।
সিলেট জেলা পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদ সভাপতি সেলিম আহমদ ফলিক বলেন, সিলেট জকিগঞ্জ বিধ্বস্থ সড়কের জকিগঞ্জ অংশ সংস্কার, দুই শহ¯্রাধিক অবৈধ টমটম ও ট্রলি এবং জকিগঞ্জে পুলিশের হয়রানী বন্ধ না হলে ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে।
জকিগঞ্জ উপজেলা টমটম শ্রমিক ঐক্য পরিষদ সভাপতি দেলোয়ার হোসেন বলেন, জকিগঞ্জের গ্রামাঞ্চলে আমরা যাত্রী সাধারন বহন করে আসছি। টমটম বন্ধ হলে শহ¯্রাধিক পরিবার সরসরি ক্ষতিগ্রস্থ হবে।

জকিগঞ্জ থানার ওসি জানান, সীমান্তবর্তী উপজেলায় গভীর রাতে বহিরাগত দুস্কৃতিকারীরা জকিগঞ্জে যাতায়াত করার কারণে চুরি, ডাকাতি ও মাদক বন্ধে অতিরিক্ত সতর্কতা হিসাবে পুলিশ গাড়ী চলাচল নিয়ন্ত্রনের রাখার চেষ্টা করছে। বিনা কারণে কাউকে হয়রানী করা হচ্ছে না।
সিলেটের জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ার বলেন, অবৈধ পরিবহনের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হচ্ছে। এর পরেও নির্দিষ্ট একটি উপজেলায় পরিবহন ধর্মঘট অযৌক্তিক। বিষয়টি নিয়ে পরিবহন নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা হচ্ছে।

     এ জাতীয় আরো খবর