,

বীরশ্রী ইউনিয়নে কমিউনিটি সচেতনতামূলক সভা

জকিগঞ্জ :
জকিগঞ্জের বীরশ্রী ইউনিয়নের রঘুরাশি গ্রামে রবিবার ২০ ডিসেম্বর সকাল ১১ টায় সূচনা কর্মসূচির আওতাভূক্ত বিভিন্ন গ্রামের কিশোরীদের অংশগ্রহণে কমিউনিটি সচেতনতামূলক সভার আয়োজন করা হয়। বীরশ্রী ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান জনাব মোঃ মুহিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য পরিদর্শক ইনচার্জ শ্রী সঞ্জয় চন্দ্র নাথ, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক শ্রী অনন্ত কুমার বিশ্বাস, উপ-সহকারী কৃষি কর্র্মকর্তা জনাব মোঃ জয়নুল হক, জিইিকে সভাপতি শ্রী বিধুভূষণ চৌধুরী, সূচনা কর্মসূচির ইউনিয়ন কো-অর্ডিনেটর আব্দুল ওয়াহিদ, জিসিডিও মফিজুর রহমান। কিেেশারী পীয়ার লিডার হাবিবা সুলতানার সঞ্চালনায় কিশোরীগণ কবিতা আবৃত্তি, গান, কৌতুক, একক অভিনয় এবং বাল্য বিবাহের কুফল সম্পর্কিত নাটিকা পরিবেশন করেন। এলাকার গর্ভবতী, দুগ্ধদানকারী মা, কিশোরী ও অন্যান্য শতাধিক নারী এতে অংশগ্রহণ করেন। অনুষ্টান শেষে ফিডব্যাক সেশনে উপস্থিত দর্শকগণ তাদের প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এ ধরনের অনুষ্ঠান এলাকার মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে।উপস্থিত দর্শকগণ হাত উচিয়ে বাল্যবিবাহকে না বলেন। এ ধরনের আেেয়াজনের জন্য তারা সূচনা কর্মসূচিকে ধন্যবাদ জানান।

জকিগঞ্জে সূচনা কর্মসূচির অভিজ্ঞতা বিনিময় ও সমাপনী সভা

জকিগঞ্জের কসকনকপুর ইউনিয়নে মঙ্গলবার ২২ ডিসেম্বর সকাল ১১ টায় সূচনা কর্মসূচির অভিজ্ঞতা বিনিময় ও সমাপনী সভা অনুষ্ঠিত হয়।কসকনকপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জনাব মোঃ আব্দুর রাজ্জাক রিয়াজ উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন। তিনি বলেন সূচনা কর্মসূচি একটি বহুমাত্রিক পুষ্ঠি প্রকল্প । প্রকল্পটি অত্র ইউনিয়নের জনগণের জীবন চর্চা ও আচরণে একটি ইতবাচক পরিবর্তন এনে দিয়েছে। ষূচনা প্রকল্প চলে গেলেও এর সুদূর প্রসারী প্রভাব মানুষের জীবনধারায় আমুল পরিবর্তন নিয়ে আসবে।সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমাজসেবা অফিসার শ্রী বিনয়ভূষন দাস। তিনি বলেন সূচনা কর্মসূচির কাজগুলো প্রশংসার দাবী রাখে। বিশেষ করে কিশোরী দলের বিভিন্ন কাজ কিশোরীদের ভবিষৎ জীবন গঠন,স্বাস্থ্য পুষ্ঠি ও ক্ষমতায়নে বেশ অবদান রাখবে।বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক জনাব মোঃ নুরুল হক। তিনি বলেন, ষূচনা প্রকল্পের প্রশিক্ষন পেয়ে আজ আমরা শিশুর বয়স অনুয়ায়ী পুষ্টি ও অপষ্টি চিহ্নিত করতে পারছি এবং বর্তমানে এলাকার সাদারণ মানুষও তা করতে পারছে । ফলে মা ও শিশুর স্বাস্থ্য ও পুষ্টি উন্নয়নে বিশেষ উন্নতি হচ্ছে। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা শ্রী দূর্গাপদ সেন। তিনি বলেন,সূচনা প্রকল্প সাধারণ মানুষকে হাতে কলমে সবজী চাষের পদ্ধতি , বেড ও মাদাপ্রস্তুত করা সহ যে কাজগুলো জনগণকে শিখিয়েছে এবং অভ্যাসে পরিণত করেছে । ইহা র্কষি উন্নয়নে য়থেষ্ট অবদান রাখবে। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সূচনা প্রকল্পের উপজেলা কো-অর্ডিনেটর জনাব জাকির হোসেন। তিনি বলেন, সূচনা প্রকল্প প্রতিটি ইউনিয়নে ৩ বছর কাজ করে।এই ৩ বছরে এলাকার মা ও শিশুর পুষ্টি অবথা উন্নয়নের মাধ্যমে ২বছর বয়সী শিশুদের খর্বতার হার কমিয়ে আনার লক্ষ্য নিয়ে সূচনা কাজ করছে। সভায় ইউপি সচিব মোঃ খছরুজ্জামান, ইউপি সদস্য ােঃ কবিরুল হাসান, ইউপি সদস্য হেলাল আহমদ, ইউপি সদস্য একেএম বদরুল হক, সুচনার ইউনিয়ন কো- অর্ডিনেটর মোঃ আজাদ মিয়া, ইউনিয়ন কো-অর্ডিনেটর মোঃ হিফজুর রহমান ও জিসিডিও মফিজুর রহমান বক্তব্য রাখেন।

     এ জাতীয় আরো খবর