,

রাতের প্যাকেজের ক্ষতি ‘খতিয়ে দেখবে’ বিটিআরসি

ব্লু হোয়েল গেইম নিয়ে উদ্বেগের প্রেক্ষাপটে হাই কোর্ট মোবাইল ইন্টারনেটে ‘রাতের বিশেষ অফার’ ছয় মাসের জন্য বন্ধের নির্দেশ দিলেও টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা-বিটিআরসি কোন প্যাকেজ ক্ষতিকর তা পর্যালোচনা করে তারপর পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলেছে।

আর অ্যাসোসিয়েশন অফ মোবাইল টেলিকম অপারেটর অব বাংলাদেশ (অ্যামটব) বলেছে, কোনো ইন্টারনেট প্যাকেজ বন্ধ করে ব্লু হোয়েল গেইম সমস্যার সমাধান সম্ভব না।

‘ব্লু হোয়েল’ বা ‘ব্লু হোয়েল চ্যালেঞ্জ’ একটি অনলাইন গেইম, যা অংশগ্রহণকারীকে মৃত্যুর পথে নিয়ে যায়।

এই গেইমে খেলোয়াড়দের সামনে চ্যালেঞ্জ হিসেবে বিভিন্ন কাজ করতে দেওয়া হয়, শুরুতে হালকা কিছু কাজ দেওয়া হলেও ধীরে ধীরে ভয়ঙ্কর সব কাজ দেওয়া হয়। সব শেষে চূড়ান্ত কাজ হিসেবে খেলোয়াড়কে আত্মহত্যা করতে বলা হয়।

কথিত ব্লু হোয়েল গেইমের ‘ফাঁদে পড়ে আত্মহত্যাকারী’ এক স্কুলছাত্রীর বাবাসহ তিন আইনজীবীর করা রিট আবেদনে হাই কোর্ট সোমবার তিন দফা নির্দেশনা দেয়।

ব্লু হোয়েল গেইমের সব লিংক ও অ্যাপ্লিকেশন বন্ধ করার পাশাপাশি মোবাইল অপারেটরগুলোর রাতের ‘বিশেষ ইন্টারনেট অফার’ ছয় মাসের জন্য বন্ধ করার আদেশ দেওয়া হয় সেখানে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম মঙ্গলবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, হাই কোর্টের আদেশ তারা মানতে বাধ্য।

“এসএমএস এর মাধ্যমে মার্কেটিংয়ের জন্য অপারেটরদের রাত্রিকালীন প্যাকেজ অফার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। রাতের ‘বিশেষ ইন্টারনেট অফার’ বন্ধও এর কাছাকাছি বলে মনে করি।”

আর বিটিআরসি চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ বলেন, আগে এ ধরনের অনেক প্যাকেজ অপারেটররা আনত, বিটিআরসির পদক্ষেপের পর তা অনেক কমে গেছে।

“হাই কোর্ট যে নির্দেশনা দিয়েছে, আমরা পর্যালোচনা করে দেখব কোন কোন প্যাকেজ ক্ষতিকারক। ক্ষতিকারক হলে অবশ্যই আমরা বন্ধ করে দেব।”

শাহজাহান মাহমুদ বলেন, ইন্টারনেটের উপর ভিত্তি করে যারা ব্যবসা করেন, তাদের ক্ষেত্রে রাত ১২ থেকে ভোর পর্যন্ত উপযুক্ত সময়।

“সব রাতের প্যাকেজ র‌্যানডমলি বন্ধ করে দিলে ব্যবসায় ক্ষতি হতে পারে। সেজন্য আমরা হাই কোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী প্যাকেজ দেথব এবং ক্ষতিকর হলে তা বন্ধ করে দেব।”

অ্যামটবের মহাসচিব টি আই এম নুরুল কবির বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ইন্টারনেট ব্যবহার কীভাবে নিরাপদ করা যায়, সে বিষয়ে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। অ্যামটবের পক্ষ থেকেও সচেতনতা তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

“কিন্তু এ ধরনের অফার বন্ধ করে দেওয়া কোনো সমাধান নয়।”

গ্রাহক সংখ্যার দিক দিয়ে দেশের সবচেয়ে বড় অপারেটর গ্রামীণফোন এক বিবৃতিতে বলেছে, আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল প্রতিষ্ঠান হিসেবে তারা এ বিষয়ে বিটিআরসির নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করবে।

গ্রামীণফোনের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, ৬১ টাকায় তাদের ২ জিবি’র একটি রাতের ইন্টারনেট অফার রয়েছে।

গ্রাহক সংখ্যার দিক থেকে দ্বিতীয় বৃহত্তম অপারেটর রবির কমিউনিকেশনস অ্যান্ড করপোরেট রেসপনসিবিলিটি বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট ইকরাম কবীর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বর্তমানে রাতের জন্য তাদের বিশেষ কোনো ইন্টারনেট প্যাকেজ নেই।

বাংলালিংকেরও রাতের একটি ইন্টারনেট অফার রয়েছে, তবে তা রাত ১২ থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত। প্রতিষ্ঠানটির কেউ এ বিষয়ে কথা বলতে চাননি।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির হিসাবে গত অগাস্ট পর্যন্ত দেশে মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৭ কোটি ৭১ লাখের বেশি। এর মধ্যে ৭ কোটি ১৮ লাখের বেশি গ্রাহক মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহার করেন।

রাতের বিশেষ ইন্টারনেট অফার বন্ধের পাশাপাশি ব্লু হোয়েলেহ এ জাতীয় ইন্টারনেট ভিত্তিক গেইমে আসক্তদের চিহ্নিত করে কাউন্সেলিংয়ের পাশাপাশি অভিজ্ঞদের নিয়ে ‘মনিটরিং সেল’ গঠনের করতে বলেছে হাই কোর্ট।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তারানা হালিম বলেন, আদালতের আদেশের কপি পেলে সুনির্দিষ্ট পরামর্শ অনুযায়ী ‘অবশ্যই’ মনিটরিং সেল গঠন করা হবে।

তিনি বলেন, ক্ষতিকর গেইম নিয়ে ইতোমধ্যে মোবাইল ফোন অপারেটর, ইন্টারনেট গেইটওয়ে আইআইজিগুলোকে নির্দেশনা নেওয়া হয়েছে এবং বিটিআরসিকে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে বলেছে সরকার। এক্ষেত্রে হাই কোর্টের নির্দেশনা বাড়তি চাপ হিসেবে কাজ করবে।

গেইমের লিংক বন্ধের বিষয়ে তিনি বলেন, “এগুলো সুনির্দিষ্টভাবে পাওয়া কঠিন, তারপরও ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।”

‘ব্লু হোয়েল’ গেইমে বাংলাদেশে আত্মহত্যার খবর গণমাধ্যমে আসার পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল সম্প্রতি বিটিআরসিকে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে বলেন।

এর ধারাবাহিকতায় বিটিআরসি তিন দিন আগে একটি বিজ্ঞপ্তি দেয়। ইন্টারনেটে ব্লু হোয়েল কিংবা এর মতো ‘জীবনবিনাশী’ কোনো গেইমের তথ্য পেলে ২৮৭২ নম্বরে ফোন করে তা জানাতে বলা হয় সেখানে।

     এ জাতীয় আরো খবর