,

৩৪-এ পা রাখলেন মাশরাফি

 মামুন রেজা, স্পোর্টস রাইটার##

৫ অক্টোবর ২০১৭- বাংলাদেশ জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক ও দেশসেরা পেসার মাশরাফি বিন মুর্তজার ৩৪তম জন্মদিন। ১৯৮৩ সালের এই দিনে নড়াইলে জন্মগ্রহণ করেন কিংবদন্তী তুল্য এই ক্রিকেটার।

বাংলাদেশের ক্রিকেটের উত্থানের সবচেয়ে বড় সাক্ষী মাশরাফি। দেশের ক্রিকেটের সুদিন আসার পেছনে যে কয়জন ক্রিকেটার রেখেছেন অগ্রণী ভূমিকা- তাঁদেরই একজন ডানহাতি পেসার।

২০০১ সালে মাত্র ১৮ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আবির্ভাব মাশরাফির। ৮ নভেম্বর ঢাকায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ দিয়ে সাদা পোশাকে যাত্রা শুরু তাঁর, যেটি ছিল আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে মাশরাফির প্রথম ম্যাচও। ঐ মাসেই (২৩ নভেম্বর) একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে চট্টগ্রামে ওয়ানডে অভিষেক হয় মাশরাফির। ক্রিকেটের সবচেয়ে ছোট ফরম্যাটে অভিষেক হয় দেশের টি-২০ ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই, ২০০৬ সালে।

মাশরাফির ক্যারিয়ারে বারবার ছোবল দিয়েছে ইনজুরি। ২০১১ সালে ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপও নড়াইল এক্সপ্রেসকে মিস করতে হয় ইনজুরির কারণে। তবুও মাশরাফির একাগ্রতা আর দেশের জার্সি গায়ে জড়িয়ে খেলার ইচ্ছা গৌরবান্বিত করে এদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের। চিকিৎসকের নিষেধ অমান্য করেই এখনও বীরদর্পে আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত খেলে যাচ্ছেন মাশরাফি। এতে তাঁর ভবিষ্যৎ কিছুটা হুমকির মুখে পড়লেও দেশের আইকনে পরিণত হওয়া মাশরাফির তাতে যেন ভ্রুক্ষেপই নেই।

তারকা ক্রিকেটার হওয়া সত্ত্বেও আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা এড়িয়ে চলে সাদামাটা জীবনে অভ্যস্ত মাশরাফি সাংসারিক জীবনে এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক। ২০০৬ সালে প্রিয়তমা সুমনা হক সুমির সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন মাশরাফি। এরপর তাঁদের কোলজুড়ে আসে ফুটফুটে মেয়ে হুমায়রা ও ছেলে সাহেল। সবচেয়ে অবাক করা ব্যাপার, পুত্র সাহেলের জন্মও মাশরাফির জন্মদিনে- ২০১৪ সালে ঠিক এই দিনটিতে!

ক্রিকেটে মনোযোগ ঢেলে দেওয়ায় পড়ালেখা বেশিদূর এগোয়নি মাশরাফির। তবে উচ্চশিক্ষা অর্জনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ পেয়ে দর্শন বিভাগে ভর্তিও হয়েছিলেন। খেলোয়াড়ি জীবনের ব্যস্ততায় এখনও অবশ্য অসমাপ্ত মাশরাফির সেই পড়ালেখা।

ক্রিকেটে মনোযোগ ঢেলে দেওয়ায় পড়ালেখা বেশিদূর এগোয়নি মাশরাফির। তবে উচ্চশিক্ষা অর্জনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ পেয়ে দর্শন বিভাগে ভর্তিও হয়েছিলেন। খেলোয়াড়ি জীবনের ব্যস্ততায় এখনও অবশ্য অসমাপ্ত মাশরাফির সেই পড়ালেখা।

১৯৮৩ সালে বাবা গোলাম মুর্তজা ও মা হামিদা মুর্তজার ঘর আলো করে পৃথিবীর মুখ দেখা মাশরাফির কারণে জন্ম হয়েছে হাজারো ক্রিকেট-স্বপ্নের। মাশরাফি এখন তাই শুধু বাবা-মায়ের গর্ব নয়, পুরো দেশের

     এ জাতীয় আরো খবর