,

খেলায় ঝগড়া করাকে কেন্দ্র করে জকিগঞ্জে শিশু সালমান হত্যাকান্ড

জকিগঞ্জ ::
খেলায় ঝগড়া করার এক পর্যায়ে শিশু সালমানের(১১) মাথায় ইটের ঢিল ছুঁড়ে তারই চাচাত ভাই ইমন আহমদ(১৬)। তারপর দস্তদস্তি করার সময় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে সালমান।সালমানের দেহ নিস্তেজ হয়ে গেলে পায়ে ধরে টেনে ঘটনাস্থল থেকে অনুমান ২০ ফুট দূরের ডোবায় নিয়ে ফেলে রাখে সালমানের লাশ। পুলিশের হাতে শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় জকিগঞ্জ থানার এসআই সৈয়দ ইমরোজ তারেকের হাতে আটকের পর ঘাতক ইমন নির্মম হত্যার বর্ণনা দেয়।
জকিগঞ্জ পৌর এলাকার ৪নং ওয়ার্ডের গন্ধদত্ত গ্রামের দিনমজুর রফিক আহমদের বড় ছেলে সালমান আহমদ (১১) কে বুধবার বিকাল থেকে পরিবারের লোকজন খোঁজে পাননি। পরদিন ১১ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার বিকালে জকিগঞ্জ টেলিফোন একচেঞ্জের পার্শ্ববর্তী একটি ডোবায় তার মৃতদেহ দেখেন স্থানীয়রা। বিষয়টি জকিগঞ্জ থানা পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।
জকিগঞ্জ থানার এসআই ইমরোজ তারেক জানান, শিশু সালমান হত্যার ৮ দিনের মাথায় তার খুনীকে আমরা গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। এ ব্যাপারে নিহত সালমানের বাবা থানা অজ্ঞাতদের অভিযুক্ত করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

     এ জাতীয় আরো খবর