,

বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া জকিগঞ্জের অসুস্থ জুবায়েরের হাতে লক্ষাধিক টাকা হস্তান্তর

জকিগঞ্জ ::
আমরা অভিভূত, আমরা মুগ্ধ, আমরা কৃতজ্ঞ। ময়মনসিংহ ত্রিশাল জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে অনার্স প্রথম বর্ষে পড়ুয়া অসুস্থ জকিগঞ্জের খলাছড়া(বসনপুর) গ্রামের এতিম অসহায় শিক্ষার্থী জুবায়ের আহমদের চিকিৎসার লক্ষ্যে গঠিত ‘বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া জুবায়ের চিকিৎসা সহায়তা তহবিল’ এক লক্ষ চার হাজার ছয়শ দশ টাকা জমা হয়েছে। মানবিক আহবানে সাড়া দিয়ে জকিগঞ্জবাসী আবারো প্রমাণ করলেন ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস যে কোনো মহতি কাজের প্রেরণা। আজ মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে জুবায়েরের কাছে চিকিৎসার এ টাকা হস্তান্তর করা হয়েছে। জকিগঞ্জের উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ তাপাদার ও পৌর মেয়র মো. খলিল উদ্দিনের মাধ্যমে তার হাতে এ টাকা তুলে দেয়া হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহ দিদাল আলম চৌধুরী নবেল, পাঠ্যপুস্তক বিক্রেতা সমিতির জেলা কমিটির সহসভাপতি আব্দুল আহাদ, সাংবাদিক নাজমুল কবির পাবেল, রাসেল আহমদ, ‘বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া জুবায়ের চিকিৎসা সহায়তা তহবিলের আহবায়ক উবায়দুল হক চৌধুরী রাজা, কমিটির সদস্য জকিগঞ্জ নিউজ টুয়েন্টিফার সম্পাদক আল মামুন, জকিগঞ্জ বার্তা সম্পাদক এনামুল হক মুন্না, এসএম শাহাদাৎ হোসেন, মুনিম আহমদ, ইসলাম উদ্দিন চৌধুরী, শামীম আহমদ, সংগঠক হিফজুর রহমান, প্রবাসী জুনেদ আহমদ প্রমুখ। অসুস্থ জুবায়ের কিডনী, মূত্রথলী ও খাদ্যনালীর সমস্যায় ভুগছে। জমাকৃত টাকার মধ্যে ৫০ হাজার টাকা একাই দিয়েছেন আমেরিকা প্রবাসী জকিগঞ্জের সেনাপতিরচক গ্রামের আব্দুল মালিক তাপাদার কালন মিয়ার মেয়ে আমেরিকা প্রবাসী সেলিনা উদ্দিন। জকিগঞ্জ প্রবাসী সমাজকল্যাণ সংস্থার সদস্যরা দিয়েছেন ১০ হাজার টাকা। সংগঠক জয়নাল আবেদীনের মাধ্যমে সংগৃহীত হয়েছে ১৬ হাজার টাকা। জকিগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যানের মাধ্যমে ইউনাইটেড ইউকে দিয়েছেন ৫ হাজার টাকা। নিজ নিজ অবস্থান থেকে বাকী টাকা জমা দিয়েছেন মানবিকতায় উদ্বুদ্ধ ব্যক্তিবর্গ। কমিটির আহবায়ক উবায়দুল হক চৌধুরী রাজা জানান, জমাকৃত উক্ত টাকা ছাড়াও জুবায়েরের সাবেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সিলেটের স্কুল অব এক্সিলেন্সের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা দিয়েছেন ২৪ হাজার টাকা। জকিগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে জুবায়েরের জন্য আরো কিছু অর্থ প্রাপ্তির সম্ভাবনা রয়েছে। আজকে থেকে ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়–য়া জুবায়েরের চিকিৎসা সহায়তা তহবিল’ বিলুপ্ত করা হয়েছে এবং এই তহবিলে আর কোনো টাকা পাঠানোর প্রয়োজন নেই। অসুস্থ মেধাবী শিক্ষার্থী জুবায়েরের প্রতি যারা সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন সকলের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

     এ জাতীয় আরো খবর