,

মৌলভীবাজারে স্কুলে ছাত্রলীগের কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে দুই ছাত্রলীগ কর্মী খুন

মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে দুই ছাত্রলীগ কর্মী খুন হয়েছে।

মৌলভীবাজারে ছাত্রলীগের দুই কর্মী মোহাম্মদ আলি সাহবাব ও নাহিদ আহমদ মাহি হত্যাকাণ্ডে ৫ ঘাতককে খুঁজছে পুলিশ।

শনিবার বিকেল থেকেই ঘাতকদের ছবি ও নাম স্থানীয় ক্যাবল টিভিসহ বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচার করা হয়। ঘাতকদের সন্ধানদাতাকে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কারও দেবে প্রশাসন।

ঘাতক সন্দেহভাজন খুনিরা হল সনি, মাহদী, তুষার, সৌমিক ও প্রতীক। এর আগে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত রুবেল নামের একজনকে রাজনগর উপজেলা থেকে গত শুক্রবার ভোরে আটক করেছে পুলিশ। রুবেলের তথ্যর ভিত্তিতেই তাদের সনাক্ত করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি সোহেল আহমদ বলেন, ঘাতকদের আটক করলে নেপথ্য প্রকৃত কারণ উদঘাটন করা যাবে। এদের সবাইকে সনাক্ত করা হয়েছে। গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত আছে।

এদিকে এই হত্যাকাণ্ডে ও পুলিশের অগ্রগতী সর্ম্পকে জানতে শনিবার দিনব্যাপী মৌলভীবাজারে অবস্থান নেন সিলেট বিভাগীয় পুলিশ কমিশনার কামরুল আহসান। তিনি শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত মৌলভীবাজার জেলায় অবস্থান করেন। নিহত দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মোহাম্মদ আলী সাহবাব ও নাহিদ আহমদ মাহীর বাড়িতে গিয়ে অভিভাবকদের সাথে কথা বলেন এবং হাসপাতাল ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। জেলা পুলিশ কর্তকর্তাদের সাথেও একাধিক বৈঠক করেন।

     এ জাতীয় আরো খবর